1. news@www.banglaroitizzo.com : BanglarOitizzo :
  2. imrankhanbsl01@gmail.com : Imran Khan : Imran Khan
  3. banglaroitizzo.news@gmail.com : newseditor :
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
কালীগঞ্জ পৌর আ’লীগের বিশেষ বর্ধিতসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্বনাথে খেলাফত মজলিসের শূরা অধিবেশন সম্পন্ন করোনাকালে ১৭ সেপ্টেম্বর মহান শিক্ষা দিবস মাকে করোনা ভ্যাকসিন দিতে এসে মোটর বাইক চুড়ি শাজাহানপুরে ১০ টি বিট পুলিশিং কার্যালয় পরিদর্শন কালীগঞ্জ প্রেসক্লাব এর সাধারণ সম্পাদক আল-আমীন দেওয়ান এর মামীর ইন্তেকাল। বিএনপি’র নেতা খন্দকার মাহাবুবের রোগমুক্তিতে জাগপা’র দোয়া মাহফিল ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মজিবর রহমানের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন নাজমুল হক প্রধান (সাবেক এমপি) বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর সুস্থতা কামনা এনডিপি’র ইতিহাসের এক গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় ৬২’র শিক্ষা আন্দোলন!

অযত্ন- অবহেলায় ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে দাড়িয়ে আছে বিশ্বনাথে হাছন রাজার বাড়ী

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ৩০ জুলাই, ২০২১
  • ১৬৯৯ বার পড়া হয়েছে
হাছন রাজার বাড়ী

‘লোকে বলে বলেরে ঘর বাড়ী ভালা নায় আমার” অমর কালজয়ী এই গানের স্রষ্টা মরমী কবি হাছন রাজা। এই গানের মতোই হাছন রাজার সিলেটের বিশ্বনাথের রামপাশার পৈত্রিক বাড়ী এখন অযত্ন- অবহেলায় ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে নিরবে আছে।

ক্রমে ক্রমে ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে রাজার তৈরী পুরনো ঘর। স্মৃতি ধরে রাখতে উদ্যোগ নিচ্ছেননা কেউ। দিনের পর দিন এভাবেই অবহেলা আর অযত্নে পড়ে আছে বিশাল বাড়িটি। যে বাড়ির দিকে তাকিয়ে আছেন হাছন রাজার অসংখ্য ভক্ত আশেকান। আগ্রহ নিয়ে হাছন রাজার বাড়ি দেখতে এসে অনেকেই হতাশ হন। যে হতাশা মানুষের মধ্যে কষ্টের পাহাড় হিসেবে উপস্থিত । অথচ এই হাছন রাজাই বিশ্বনাথের রামপাশা গ্রামেই জীবন-যৌবন কাটিয়েছেন।

 

বাংলার মরমী সাহিত্যে হাছন রাজার নাম বিশেষভাবে উল্ল্যেখ যোগ্য। হাছন রাজার পরিবারের বিশাল ভূ- সম্পত্তি এখনও বিশ্বনাথের রামপাশায় রয়েছে। বিশেষ করে রামপাশার বাড়ীটি এখন অযত্ন-অবহেলায় দন্ডায়মান আছে।

তবুও শতশত সাহিত্য ও সংস্কৃতি প্রেমী মানুষ এখনও এক নজর দেখার জন্য দেশের দুর -দুরান্ত থেকে রামপাশায় আসেন। সেখানে গিয়ে সাহিত্য ও সংস্কৃতি প্রেমীরা দেখতে পান একটি জরাজীর্ণ ভঙ্গুর পাকা বাড়ী যা আজও কালের স্বাক্ষী হয়ে দন্ডায়মান আছে।

বাড়ীর সামনের বিশাল দীঘি সহ এই জমিতে হাছন রাজার স্মৃতির নিদর্শন হিসেবে অনেক কিছু করা যেতে পারে।পরিকল্পিত ভাবে এ জায়গাকে কাজে লাগিয়ে দেশী-বিদেশী পর্যটকদের জন্য করা যেতে পারে সাহিত্য ও সংস্কৃতির মিলন কেন্দ্র।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

নিউজ ক্যাটাগরি

UDOY ADD
©দৈনিক বাংলার ঐতিহ্য (2019-2020)