1. news@www.banglaroitizzo.com : BanglarOitizzo :
  2. imrankhanbsl01@gmail.com : Imran Khan : Imran Khan
  3. banglaroitizzo.news@gmail.com : newseditor :
বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৪০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
কালীগঞ্জ পৌর আ’লীগের বিশেষ বর্ধিতসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্বনাথে খেলাফত মজলিসের শূরা অধিবেশন সম্পন্ন করোনাকালে ১৭ সেপ্টেম্বর মহান শিক্ষা দিবস মাকে করোনা ভ্যাকসিন দিতে এসে মোটর বাইক চুড়ি শাজাহানপুরে ১০ টি বিট পুলিশিং কার্যালয় পরিদর্শন কালীগঞ্জ প্রেসক্লাব এর সাধারণ সম্পাদক আল-আমীন দেওয়ান এর মামীর ইন্তেকাল। বিএনপি’র নেতা খন্দকার মাহাবুবের রোগমুক্তিতে জাগপা’র দোয়া মাহফিল ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মজিবর রহমানের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন নাজমুল হক প্রধান (সাবেক এমপি) বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর সুস্থতা কামনা এনডিপি’র ইতিহাসের এক গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় ৬২’র শিক্ষা আন্দোলন!

বরিশালে কালীবাড়ী রোডে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চলছে নিয়মবহির্ভূত স্থাপনা নির্মান

বরিশাল প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত: রবিবার, ৩০ মে, ২০২১
  • ১০৫ বার পড়া হয়েছে
স্থাপনা নির্মান
ছবি : বাংলার ঐতিহ্য

বরিশালের প্রানকেন্দ্র কালীবাড়ী রোডস্থ মাননীয় মেয়র মহোদয়ের বাড়ির কাছেই জেলা সমাজেসেবা কার্যালয়ের বিপরীতে একটি ভবনের দেয়ালের গা ঘেষে আরেকটি ভবনের স্থাপনা নির্মান কাজ শুরু হয়েছে।

এ বিষয়ে বরিশাল সিটি করপোরেশনে একটি অভিযোগও জমা হয়েছে যা তথ্য সূত্রে জানা গেছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, নগরীর কালীবাড়ী রোডে সমাজসেবা কার্যালয়ের বিপরীতে স্থায়ী নিবাসী খোকন বসু এবং তার ছেলে বিজয় বসু তাদের পাকা স্থাপনা নির্মান কাজ শুরু করেছেন বেশ কিছুদিন আগেই।বিস্তারিত তথ্য নিয়ে জানা যায়, শুরুতে ছিলো না কোন বিসিসির প্লান পাশ।তাদের জমিরও ছিলো না কোন সার্ভেয়ার কর্তৃক পরিমাপকৃত নির্দিষ্ট সীমানা। এ নিয়েও আশে পাশের জমি ও ভবন মালিকদের সাথেও তাদের দ্বন্দ লেগেই থাকতো।গত বছর বিসিসির কোন প্লান পাশ ছাড়াই এবং সীমানা নির্ধারন ছাড়াই পাশের ভবনের গা ঘেষে স্থাপনা নির্মান করতে শুরু করে এই পরিবার। এর পরিপ্রেক্ষিতে পাশের ভবন মালিক বিসিসিতে অভিযোগ জমা দেন নিয়মবহির্ভূত স্থাপনা নির্মান ও হয়রানি সহ চাঁদাবাজীর।

বিসিসিতে অভিযোগ জমা হলে খোকন বসুর ছেলে বিজয় বসু শুরু করে এলাকায় ত্রাস মেয়রের নাম ভাঙিয়ে এবং নিজেকে স্বেচ্ছাসেবকলীগের কর্মী দাবী করে। নানা হয়রানি সহ চাদাঁ দাবী করে চলে প্রতিনিয়ত। বিসিসি নিষেধাজ্ঞা দিলে স্থাপনা নির্মান কাজ বন্ধ করলেও আশে পাশের ভবন মালিকদের সাথে তার সন্ত্রাসী আচরন শুরু হয়।
এক পর্যায় কাউন্সিলরের স্থান পরিদর্শন ও পরামর্শে থেমে যায় তার ত্রাস এবং তড়িঘড়ি করে প্লান পাশ করে নেয় বিসিসি থেকে।

প্লান পাশ করলেও বিসিসির স্থায়ী পাকা স্থাপনা নির্মানের কোন শর্ত না মেনেই আবার পাশের ভবনের গা ঘেষে স্থাপনা নির্মান শুরু করে বিজয় বসু এবং রাস্তা ও ফুটপাত দখল করে নির্মান সামগ্রী রেখে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করে। এর প্রেক্ষিতে আবারও বিসিসিতে অভিযোগ দায়ের করলে বিসিসি কর্তৃপক্ষ স্থাপনা নির্মানে নিষেধাজ্ঞা দেয়। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেই অদৃশ্য ক্ষমতা দেখিয়ে স্থাপনা নির্মান করে চলেছে যা প্রায় শেষ পর্যায়।

সরেজমিনে গিয়ে আরও যে তথ্য পাওয়া যায় তা হচ্ছে, ফুটপাত দখল করে ভ্রাম্যমান সবজি ও মাছ বাজারও বসিয়েছে বসু পরিবার ও তাদের পাশের জমির এক ভদ্রলোক। চলে দিনশেষে ভ্রাম্যমান ব্যবসায়ীদের থেকে বিট নেয়াও। পথচারীদের চলাচল করতে রাস্তার মধ্যে দিয়ে এদের দখলদারীল জন্য আর তাতে ঘটছে দুর্ঘটনাও।শিশু ও বৃদ্ধদের জন্য তো মহাভোগান্তী।

এমনই চিত্র এবং তথ্য পাওয়া গেছে কালীবাড়ী রোডে পরিদর্শনে গিয়ে।

এলাকার একজন প্রতিবেদককে বলেন, “এই বিজয় বসু হচ্ছে যত নষ্টের মূল। সন্ধ্যার পরে এখানে উচ্শৃঙ্খল আর নেশাখোরদের নিয়ে আড্ডা দেয় এবং অত্যধিক সাউন্ডে গান বাজনা চালায় যা সকলের জন্য বিরক্তিকর। এছাড়া ফুটপাত দখল করে ভ্রাম্যমান ব্যবসায়ী বসিয়ে বিটবানিজ্য করে এটাও অবৈধ।আর বিসিসির নিয়মবহির্ভূত স্থাপনা নির্মান এটা তো দুঃখজনক কারন এলাকাটি স্বয়ং আমাদের জনদরদী মাননীয় মেয়র মহোদয়ের বাড়ির এলাকা। মেয়র মহোদয়ের উচিৎ এখনই একে আইনের আওতায় নিয়ে আসা এবং স্থাপনা নির্মান বন্ধ সহ ফুটপাত দখলমুক্ত করা ও আমাদের এলাকার সুনাম এবং মেয়র মহোদয়ের সুনাম অক্ষুন্ন রাখা।”

স্থাপনা নির্মানরত রাজমিস্ত্রি বলেন আমরা মালিকের কথায় কাজ করি এসব কিছু জানিনা। অন্যদিকে বিজয় বসু বলেন, “বিসিসির প্লান পাশ করা আছে আর সবই জানে সবাই আমরা আমাদের কাজ চালিয়ে যাবো যে যা খুশি বলুক দেখি কে আটকায়।”

অত্র এলাকার কাউন্সিলর গাজী আক্তারুজ্জামান হীরুর কাছে এ বিষয়ে জানতে গেলে তাকে কার্যালয়ে পাওয়া যায়নি এবং কল করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

নিউজ ক্যাটাগরি

UDOY ADD
©দৈনিক বাংলার ঐতিহ্য (2019-2020)