1. news@www.banglaroitizzo.com : BanglarOitizzo :
  2. imrankhanbsl01@gmail.com : Imran Khan : Imran Khan
  3. banglaroitizzo.news@gmail.com : newseditor :
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৪৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
কালীগঞ্জ পৌর আ’লীগের বিশেষ বর্ধিতসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্বনাথে খেলাফত মজলিসের শূরা অধিবেশন সম্পন্ন করোনাকালে ১৭ সেপ্টেম্বর মহান শিক্ষা দিবস মাকে করোনা ভ্যাকসিন দিতে এসে মোটর বাইক চুড়ি শাজাহানপুরে ১০ টি বিট পুলিশিং কার্যালয় পরিদর্শন কালীগঞ্জ প্রেসক্লাব এর সাধারণ সম্পাদক আল-আমীন দেওয়ান এর মামীর ইন্তেকাল। বিএনপি’র নেতা খন্দকার মাহাবুবের রোগমুক্তিতে জাগপা’র দোয়া মাহফিল ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মজিবর রহমানের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন নাজমুল হক প্রধান (সাবেক এমপি) বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর সুস্থতা কামনা এনডিপি’র ইতিহাসের এক গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় ৬২’র শিক্ষা আন্দোলন!

শরীয়তপুর জাজিরায় কৃষিতে যোগ হচ্ছে নতুন সবজি চাষ

শরীয়তপুর প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত: সোমবার, ২৪ মে, ২০২১
  • ৬৯১ বার পড়া হয়েছে
কন্দ
ছবি : বাংলার ঐতিহ্য

মানুষের প্রাত্যহিক খাদ্য তালিকায় কন্দ (কচু) জাতীয় ফসলের সংযোজন ঘটাতে এবং নিরাপদ ফসল উৎপাদন নিশ্চিত করার পাশাপাশি আমদানি বাড়াতে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন কন্দল (কচু জাতীয়) ফসল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায়, প্রথম বারের মত শরীয়তপুর জাজিরাতে ওলকচু ও গাছ আলুর চাষের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ২০২০-২১ অর্থ বছরে উপজেলায় ৫ জন কৃষকের মাধ্যমে মাদ্রাজী ওলকচু ও দুইজন কৃষকের মাধ্যমে গাছ আলু চাষের এ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

বড়কান্দি ইউনিয়নের ডুবিসায়বর গ্রামের ওলকচু ও গাছ আলু চাষি কাজি ফারুক বলেন, এই ওল কচু চাষ আগে কখনোই করিনি। এখন কৃষি অফিস থেকে বলছে ফলন ভালো হবে এবং দামও ভালো পাওয়া যাবে। এখন পর্যন্ত দেখতে ভালোই লাগছে, আশা করছি এর ফলনও ভালোই হবে। খরচ খুব সীমিত, ঝামেলা কম। এবার লাভবান হলে আগামীতে আমিসহ অন্যান্য কৃষকরাও এর চাষ করবে।

এ ওল কচু বাস্তবায়নে তদারকি করে যাচ্ছে স্থানীয় উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ নাসির উদ্দিন হাওলাদার। তিনি জানান, জাজিরাতে কন্দ জাতীয় ফসলের চাহিদা আছে কিন্তু উৎপাদন তেমন নেই। তাই আমরা এই বছর ওলকচু, গাছ আলুসহ পানি কচু ও মুখী কচু লতির প্রদর্শনী অফিস থেকে দেয়া হয়েছে। যেখানে রোপণ থেকে শুরু করে নিয়মিত বিভিন্ন কারিগরি পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি, যাতে কৃষক ভালো ফলন ও দাম পায়। আমরা জাজিরাতে বর্তমানে নানা ধরনের নিত্য নতুন ফসলের জাত ও প্রযুক্তি বিস্তারে উপজেলা কৃষি অফিস থেকে কাজ করে যাচ্ছি যার সুফল জাজিরার মানুষ ইতিমধ্যে পাচ্ছে এবং ভবিষ্যৎ তেও পাবে।

জাজিরা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ জামাল হোসেন বলেন, ওলকচু ও গাছ আলুতে রয়েছে উপকারী আশ ছাড়াও শর্করা ও প্রয়োজনীয় ভিটামিন এবং খনিজ লবন। তাই কন্দ জাতিয় ফসলের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে কিন্তু উৎপাদন চাহিদার তুলনায় অনেক কম। এ বিষয় নিয়ে সরকার দেশে কন্দ জাতিয় ফসলের উৎপাদন বাড়াতে কন্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছে। ফলে আমরা এই ওলকচু, গাছ আলুর মত অপ্রচলিত অথচ উচ্চমূল্যের ফসল উৎপাদন বাড়াতে উদ্যোগ নিতে পেরেছি। এর ফলে এর দেশীয় চাহিদা মিটিয়ে কোরিয়া, জাপানসহ অন্যান্য দেশেও যা রপ্তানি করা সম্ভব হবে। আর সবচেয়ে বড় কথা এই ফসল উৎপাদন করতে কৃষকের খরচ পরে কম। লাভ বেশি। কারন এই সব কচু জাতীয় ফসল বাজারে আসে এমন একটা সময়ে যখন অন্যান্য সবজি তেমন একটা থাকে না। ফলে সবাই কিনতে পারে এবং এটি নিরাপদ। কারন, বালাইনাশক ব্যবহার নেই বল্লেই চলে।

তিনি আরো জানান, জাজিরাতে এই প্রকল্পের মাধ্যমে এ বছর ওলকচু, গাছ আলু ছাড়াও বিভিন্ন ইউনিয়নে পানি কচু, লতি কচু, মুখী কচু, আলু, মিষ্টি আলুসহ অন্যান্য কন্দ জাতিয় ফসলের উৎপাদন করতে প্রদর্শনী স্থাপনসহ কৃষক-কৃষানীদের প্রশিক্ষণ এবং মাঠ দিবসের মাধ্যমে কৃষক সচেতনতা সৃষ্টির চেষ্টা করে যাচ্ছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

নিউজ ক্যাটাগরি

UDOY ADD
©দৈনিক বাংলার ঐতিহ্য (2019-2020)