1. news@www.banglaroitizzo.com : BanglarOitizzo :
  2. imrankhanbsl01@gmail.com : Imran Khan : Imran Khan
  3. banglaroitizzo.news@gmail.com : newseditor :
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৪৪ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
কালীগঞ্জ পৌর আ’লীগের বিশেষ বর্ধিতসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্বনাথে খেলাফত মজলিসের শূরা অধিবেশন সম্পন্ন করোনাকালে ১৭ সেপ্টেম্বর মহান শিক্ষা দিবস মাকে করোনা ভ্যাকসিন দিতে এসে মোটর বাইক চুড়ি শাজাহানপুরে ১০ টি বিট পুলিশিং কার্যালয় পরিদর্শন কালীগঞ্জ প্রেসক্লাব এর সাধারণ সম্পাদক আল-আমীন দেওয়ান এর মামীর ইন্তেকাল। বিএনপি’র নেতা খন্দকার মাহাবুবের রোগমুক্তিতে জাগপা’র দোয়া মাহফিল ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মজিবর রহমানের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন নাজমুল হক প্রধান (সাবেক এমপি) বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর সুস্থতা কামনা এনডিপি’র ইতিহাসের এক গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় ৬২’র শিক্ষা আন্দোলন!

শাজাহানপুর থানায় গণ স্বাক্ষরিত অভিযোগ দিলেন গ্রামবাসি

বগুড়া প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ৬ জুলাই, ২০২১
  • ৩০২৩ বার পড়া হয়েছে
শাজাহানপুর থানা

বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার আমরুল ইউনিয়নের ফুলকোট গ্রামের বামনদীঘি পাড়ার মানিক মিয়া(৩৫) এর বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছেন গ্রামবাসি। মাদক চুরি জুয়া সহ বিভিন্ন অভিযোগ আনা হয় তার বিরুদ্ধে। গতকাল সোমবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে অভিযোগ দিতে গ্রামের যুবক বৃদ্ধ সহ অন্তত ২০জন লোক আসেন। অভিযোগ পত্রে ওই গ্রামের শিক্ষক, ব্যবসায়ী, কৃষক, চাকুরি জীবি সহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার ৬৫জন নারী পুরুষ স্বাক্ষর করেছেন। অভিযোগের অনুলিপি দিয়েছেন শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বগুড়া পুলিশ সুপার এবং বগুড়া জেলা প্রশাসক এর কাছে।

অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, উপজেলার ফুলকোট গ্রামের বামনদিঘী পাড়ার মৃত মনছের আলী আকন্দ এর ছেলে মানিক। এক সময় সেনাবাহিনীতে চাকুরি করতেন। মাদক সংক্রান্ত কারণে তার সেই চাকুরি চলে যায়। গ্রামে এসে আপন ভাগিনা বাবলু মিয়ার ছেলে আব্দুল খালেক ওরফে খাল্লাসকে নিয়ে একটি বাহিনী গড়ে তুলেছেন। এলাকায় ইয়াবা এবং গাাঁজার কারবার চালিয়ে আসছে এই বাহিনী। এদের সদস্যরা সম্প্রতি ৩টি দোকানে চুরি করে। প্রায়ই ফসলী মাঠ থেকে স্যালো মেশিন চুরি করছে। এবং বিভিন্ন বাড়ি থেকে টিউবওয়েল চুরি করছে। এর আগে এই গ্রামে চুরি ছিলোনা। মাদক ছিলোনা বললেই চলে। এই এলাকায় কোথাও মাদক বিক্রি হতোনা।

এই গ্রামে কোনদিন জুয়া চলেনি। সম্প্রতি এই গ্রামের মৃত দুদু মিয়ার ছেলে মোখলেস এর বাড়িতে ডাবু জুয়া চালায় মানিক এবং তার সহযোগীরা। বিষয়টি থানা পুলিশ জানতে পেরে অভিযান পরিচালনা করেন। দূর্ভাগ্য বশত মানিক এবং তার সহযোগীরা সেদিন পালিয়ে যেতে স্বক্ষম হন। এর আগেও গ্রামের শেষে বিল কেশপাথার গ্রামে ডাবু বসানোর চেস্টা করে মানিক। বর্তমানে মানিক এবং তার ভাগিনা খাল্লাস এলাকায় মাদক বিক্রি করে আসছে। এই কাজে মানিকের বাড়ির নারী সদস্যরাও জড়িয়ে পড়েছেন।

এর আগে মানিক এবং খাল্লাস একাধিক বার মাদক সহ পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন। তাদের বিরুদ্ধে আদালতে একাধিক মামলা বিচারাধীন রয়েছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।

মানিক মোবাইল ফোনে জানান, তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দেয়া হয়েছে। তিনি মাদক জুয়া চুরি কোন কিছুর মধ্যেই নাই। আগে সেনাবাহিনীতে চাকুরি করতেন। সেটা চলে যাওয়ার পর তিনি কস্টে জীবন চালাচ্ছেন। চাষ করার মত তার এক শতক জমিও নাই। কিস্তির উপরে টাকা নিয়ে তিনি বসে বসে খাচ্ছেন। তার ছোট একটা সংসার আছে। সংসার খরচ এবং কিস্তির টাকা কী ভাবে চালাচ্ছেন সে ব্যাপারে কোন উত্তর দিতে পারেন নাই মানিক।

সম্প্রতি কামারপাড়া এলাকায় কয়েকটি দোকানে চুরির ঘটনায় তার ভাগিনা খাল্লাসের ছোট ভাই আব্দুল মোত্তালিব ওরফে কেন্না এর নাম বলছেন কেউ কেউ। বিষয়টি তিনি দেখবেন বলে জানিয়েছেন।

আমরুল ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড ফুলকোট গ্রামের ইউপি সদস্য জাহিদুর রহমান উজ্জল জানান, ফুলকোট গ্রামের বামন দীঘি পাড়ায় জুয়া মাদকের কিছু বিষয় আছে তিনি শুনেছেন। তবে কারা জড়িত তা তিনি জানেন না।

শাজাহানপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

নিউজ ক্যাটাগরি

UDOY ADD
©দৈনিক বাংলার ঐতিহ্য (2019-2020)